No icon

বিএনপির সন্ত্রাসীরা কর্মীদের ছিনিয়ে নেয়

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আবারও চক্রান্ত বাতাসে উড়ছে। আবারও ষড়যন্ত্র-পেট্রলবোমার গন্ধ পাচ্ছি। পুলিশের ভ্যান জঙ্গি স্টাইলে ভাঙা হলো। রাস্তায় গোলমালের জন্য নিয়োজিত বিএনপির সন্ত্রাসীরা কর্মীদের ছিনিয়ে নিল।’

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে এক আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন। শ্রমিক-কর্মচারী-পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলনের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ওবায়দুল কাদের। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন আদালতের কাছাকাছি কী আলামত! আক্রমণ কে করল? আক্রমণ করল কার ওপর। পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভেঙে ফেলল জঙ্গি স্টাইলে। রাস্তায় গোলমাল করার জন্য নিয়োজিত বিএনপির সন্ত্রাসীরা, সন্ত্রাসী কর্মীদের ছিনিয়ে নিল।’ তিনি বলেন, মঙ্গলবারের ঘটনার আলামত খারাপ। উদ্দেশ্য নোংরা। খালেদা জিয়ার আদালতে যাওয়া মানেই রাজপথে বিশৃঙ্খলা, একটি নৈরাজ্যজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি।

মঙ্গলবার বিকেলে হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশ সদস্যদের পিটিয়ে প্রিজন ভ্যান ও আগ্নেয়াস্ত্র ভেঙে নিজেদের কর্মীদের ছাড়িয়ে নিয়ে যায় বিএনপির নেতা-কর্মীরা। এ ঘটনায় ওবায়দুল কাদের এসব মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, গতকাল সীমা অতিক্রম হয়ে গেছে। গণতান্ত্রিক রাজনীতির সব সীমা অতিক্রম করে বিএনপি জঙ্গি স্টাইলে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে। এই স্টাইলটা কি গণতান্ত্রিক? এরা নাকি দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবে! তিনি বলেন, বিএনপি যদি আবার ক্ষমতায় আসে, তাহলে আবারও দেশে ২০০১ সালের মতো সন্ত্রাসে ডুবে যাবে। আবারও দেশ নৈরাজ্যে ডুবে যাবে।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আবারও আরেকটি নির্বাচন আসছে। নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে, বিএনপি এবং তাদের দোসররা আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে আবারও নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য নির্বাচনে অংশ না নিয়ে নিজেদের ভুলের দায় জনগণের ওপর বর্তাতে চাচ্ছে।

বিএনপি বিদেশিদের কাছে নালিশ করছে অভিযোগ করে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, এত দিন তাদের নালিশ ছিল সরকারের বিরুদ্ধে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে এবং আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে। বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে আদালতের রায়ের বিষয়ে বিদেশিদের কাছে নালিশ দিয়েছে। তিনি বলেন, তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে দেশের আদালত দুর্নীতির মামলার বিচার করবে। আদালতের রায় নিয়ে বিদেশিদের কী করার আছে? খালেদা জিয়াকে এই মামলা থেকে রেহাই দিতে বিদেশিরা কি আদালতকে প্রভাবিত করবে?

নিজেদের কর্মীদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা কোনো উসকানি দেব না। কিন্তু আক্রমণ হলে সমুচিত জবাব দেব। সে জন্য প্রস্তুত হোন, মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিন।’ তিনি বলেন, ‘রাস্তায় তাণ্ডব-সন্ত্রাস করলে বাংলাদেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা প্রতিরোধ করব। এখানে কোনো আপস নেই।’ তিনি বলেন, ‘আমি আবারও বলছি, আগুন নিয়ে খেলবেন না। আগুন নিয়ে খেললে এর সমুচিত জবাব দিয়ে দেওয়া হবে। অন্যায় করলে অবশ্যই বিচার হবে।’

Comment