A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: newsPosition

Filename: models/Write_setting_model.php

Line Number: 188

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Write_setting_model.php
Line: 188
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Print_article.php
Line: 11
Function: home_category_position

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

Sottokonthonews.com || সত্যকণ্ঠ নিউজ ডটকম
Sottokonthonews.com || সত্যকণ্ঠ নিউজ ডটকম
‘বিকেলে ইসি-সচিব যান বিশেষ দলের বিশেষ কার্যালয়ে’
Tuesday, 10 Jul 2018 12:30 pm
Sottokonthonews.com || সত্যকণ্ঠ নিউজ ডটকম

Sottokonthonews.com || সত্যকণ্ঠ নিউজ ডটকম

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, একজন সচিবকে দিয়ে সরকার নির্বাচন কমিশন চালায়। তিনি হলেন হেলালুদ্দীন আহমেদ। তিনি বিকেল চারটা পর্যন্ত নিজের অফিস করেন। এরপর চলে যান একটি বিশেষ দলের বিশেষ কার্যালয়ে।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘৯০-এর ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য নেতাদের আয়োজিত এক সমাবেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ অভিযোগ করেন।

ফখরুল বলেন, সচিব যে কার্যালয়ে যান সেখানে দলটির নির্বাচনের পরিকল্পনা তৈরি হয়, যার প্রধান হলেন এইচ টি ইমাম। এইচ টি ইমাম যেকোনো নির্বাচনের আগে নির্বাচন কমিশনে যান। সেখানে গিয়ে কথা বলেন। তিনি নিজেও স্বীকার করেছেন যে ২০১৪ সালের নির্বাচন তিনি নিজেই করিয়েছেন সরকারি কর্মকর্তাদের দিয়ে।

সমাবেশে সরকারের উদ্দেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, একদিনের জন্য ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে দেখুন, দেশের কী অবস্থা হয়। এই সরকার এমন জায়গায় গেছে, যেখান থেকে ফিরতে পারবে না। সরকার যেখানে গেছে, সেখানে জনগণের কোনো স্থান নেই। সরকার সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, ‘সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে বন্দুক-পিস্তলের ওপর নির্ভর করে হুকুমের বলে রাষ্ট্র পরিচালনা করছে। একটি দিনের জন্য ক্ষমতা ছেড়ে দেন না, ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে দেখুন কী অবস্থা হয় দেশের।’

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ নেই অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ছাত্রলীগ দখল করে নিয়েছে। আজকে স্বাস্থ্যসেবা বলতে কিছু নেই। স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে নৈরাজ্য চলছে—চিকিৎসকেরা হাসপাতাল বন্ধ করে দিচ্ছেন, রোগীদের বের করে দিচ্ছেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে বেশি দিন জেলে রাখতে পারবে না। ইতিহাস তা বলে না। ইতিহাস বলে, এ দেশের মানুষ সব সময় নিপীড়িত ও নির্যাতিত মানুষের পক্ষে। ইতিহাস বলে, এ দেশে সব সময় যাকে কারারুদ্ধ করে নির্যাতন করা হয়, তার পক্ষে মানুষ দাঁড়িয়েছে। তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে এ দেশের মানুষ কারাগার থেকে মুক্ত করে আনবে। কারাগার ভেঙেই তাঁকে নিয়ে আসবে। মানুষকে একত্রিত করতে হবে। সময় এবং সুযোগের অপেক্ষা করতে হবে।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আমানউল্লাহ আমান, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবি খোকন প্রমুখ সমাবেশে বক্তব্য দেন।

সূত্রঃ প্রথম আলো