No icon

বড় বিনিয়োগকারীদের সঞ্চয়পত্র কিনতে দেবে না সরকার

বড় বিনিয়োগকারীদের সঞ্চয়পত্র কিনতে দেবে না সরকার

বড় বিনিয়োগকারীদের সঞ্চয়পত্র কেনা আটকাতে এ খাতে অটোমেশন বা স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে সরকার। এ ছাড়া ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটের পর সরকারের পক্ষ থেকে সঞ্চয়পত্রের সুদের হারও পর্যালোচনা করা হবে।

শনিবার এক বাজেট আলোচনায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন এসব কথা জানান। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই), দৈনিক সমকাল ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টোয়েন্টিফোর এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

সমকাল-এর সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অর্থনীতিবিদ ও আর্থিক খাতের প্রতিনিধিরা অভিযোগ করেন, সঞ্চয়পত্রের বাড়তি সুদের কারণে বেসরকারি খাত বন্ড ছেড়ে আমানত টানতে পারছে না। সঞ্চয়পত্রের সুফল মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্তরা পাচ্ছে।

জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকার সঞ্চয়পত্রের সুদের হার বাজারের চেয়ে কিছুটা বাড়তি রাখতে চায়। তবে এখনকার হার বাজারের চেয়ে অনেক বেশি। এটা বাজেটের পরে পুনর্মূল্যায়ন করা হবে।

অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাইকেল ফলি মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারে ভ্যাট তুলে নেওয়া ও থ্রিজি সিমকে ফোরজিতে পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ১০০ টাকার শুল্ক অব্যাহতি দেওয়ার অনুরোধ করেন। এর জবাবে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, বাজেটে বিশেষ সুবিধা থাকবে, যাতে ফোরজি ভালোভাবে চলতে পারে। অবশ্য কী সুবিধা তা তিনি জানাননি।

অনুষ্ঠানে বাজেট উপলক্ষে ব্যবসায়ী, অর্থনীতিবিদ, বিশ্লেষকসহ বিভিন্ন খাতের পক্ষ থেকে নানা প্রস্তাব তুলে ধরা হয়।

Comment