No icon

ভারতে বিদেশি রোগীর সংখ্যায় শীর্ষে বাংলাদেশ

ভারতে প্রতিবছরই চিকিৎসার জন্য প্রচুরসংখ্যক বিদেশি রোগী আসেন। রাজ্যের নামীদামি হাসপাতালে এই রোগীদের আনাগোনা বেশি। তবে দেশটির পর্যটন মন্ত্রণালয় বলছে, বিদেশি রোগীদের মধ্যে এখনো শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশিদের সংখ্যা।

কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, গত বছর শুধু বাংলাদেশ থেকে ২ লাখ ২১ হাজার ৭৫১ জন মানুষ চিকিৎসার জন্য ভারতে এসেছিলেন। এই হিসাবে আরও বলা হয়, ইউপিএ আমলের চেয়ে এখন বাংলাদেশ থেকে বেশি রোগী আসছেন।

পর্যটন মন্ত্রণালয়ে সূত্রে আরও বলা হয়, গত বছর আফগানিস্তান থেকে ভারতে চিকিৎসার জন্য এসেছেন ৫৫ হাজার ৬৮১ জন রোগী। এরপরই স্থান ছিল ইরাকের। সেখান থেকে এসেছেন ৪৭ হাজার ৬৪০ জন রোগী। গত বছর ওমান থেকে এসেছেন ২৮ হাজার ১৫৭ জন। আর মালদ্বীপ থেকে এসেছিলেন ৪৫ হাজার রোগী। গত বছরই মালদ্বীপ থেকে রেকর্ডসংখ্যক রোগী এসেছিলেন ভারতে। তবে ২০১৭ সালে এই সংখ্যা ছিল মাত্র ১০ হাজার।

অন্য একটি সূত্রে জানা যায়, গত বছর কমসংখ্যক রোগী এসেছেন পাকিস্তান থেকে। যার পরিমাণ ছিল মাত্র ১ হাজার ৭৮৫ জন। ২০১৬ সালে ওই সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৯৫৫।

এদিকে বিশেষ করে বাংলাদেশি রোগীদের সুচিকিৎসা দেওয়ার জন্য ভারতের স্বাস্থ্য ও পর্যটন মন্ত্রণালয় নতুন করে পরিকল্পনা নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ভারতীয় দূতাবাসের মাধ্যমে চিকিৎসাসংক্রান্ত বিশেষ সেমিনারের আয়োজন এবং ভারতের সব কটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হেল্প ডেস্ক খোলা। যাতে করে বাংলাদেশের রোগীরা চিকিৎসা পরিষেবায় আরও বেশি করে সাহায্য পেতে পারেন।

Comment