A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: newsPosition

Filename: models/Write_setting_model.php

Line Number: 188

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Write_setting_model.php
Line: 188
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 32
Function: home_category_position

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Invalid argument supplied for foreach()

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 168

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 168
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: cat_list

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: implode(): Invalid arguments passed

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: implode

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined offset: 1

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 17

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 17
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 173
Function: page_data_for_home

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Invalid argument supplied for foreach()

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 168

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 168
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: cat_list

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: implode(): Invalid arguments passed

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: implode

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined offset: 1

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 17

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 17
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 173
Function: page_data_for_home

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

ইন্দোনেশিয়ার লমবক দ্বীপে ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহত ৮২
No icon

ইন্দোনেশিয়ার লমবক দ্বীপে ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহত ৮২

ইন্দোনেশিয়ায় পর্যটন দ্বীপ লমবকে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় শক্তিশালী এক ভূমিকম্পে ৮২ জন নিহত হয়েছে। শতাধিক ব্যক্তি আহত। অনেক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের তীব্রতা ছিল ৬ দশমিক ৯। পাশের বালি দ্বীপেও এই ভূকম্পন অনুভূত হয়।

ছুটি কাটানোর জন্য জনপ্রিয় এই দ্বীপে এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবার একটি শক্তিশালী ভূমিকম্প হলো। এর আগে গত ২৯ জুলাইয়ের ভূমিকম্পে ওই দ্বীপে ১৭ জন নিহত হয়।

ভূমিকম্পে আহত এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ সময় হাসপাতালে আগে থেকে থাকা রোগীদের বের করে আনা হয়। মাতারাম সিটি হাসপাতাল, মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সভূমিকম্পে আহত এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ সময় হাসপাতালে আগে থেকে থাকা রোগীদের বের করে আনা হয়। মাতারাম সিটি হাসপাতাল, মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সভূমিকম্পের পর সুনামির সতর্কতা জারি করা হয়। কয়েক ঘণ্টা পর তা তুলে নেওয়া হয়। হাজার হাজার লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

দেশটির দুর্যোগ মোকাবিলা সংস্থার মুখপাত্র সুতোপো পুরবো নাগরোহো বলেন, সুনামির সতর্কতা জারি করার পর লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।shah cement

ভূমিকম্পে লমবকের পার্বত্য উত্তরাঞ্চলে প্রাণহানি বেশি। প্রধান পর্যটন এলাকাগুলো দ্বীপের দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ দপ্তর বলেছে, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল উত্তর লমবকের ১০ কিলোমিটার গভীরে। ভূমিকম্পের পর দ্বিতীয় দফায় দুটি পরাঘাত হয়। এরপর অল্প সময়ের মধ্যে আরও ২৪টি পরাঘাত হয়। ইন্দোনেশিয়ার আবহাওয়া সংস্থা।

ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মসজিদের মিনার। মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মসজিদের মিনার। মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সউদ্ধারকারী কর্মকর্তা জানান, বেশির ভাগ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে লমবকের প্রধান শহর মাতারামে। হঠাৎ প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে কেঁপে ওঠে ঘরবাড়ি। লোকজন আতঙ্কিত হয়ে হুড়মুড় করে ঘরবাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে। শহরের বিভিন্ন অংশ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। হাসপাতাল থেকে রোগীদের সরিয়ে নেওয়া হয়।

সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কে শানমুগাম বর্তমানে এক নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশ নিতে লমবকে আছেন। ভূমিকম্পের পর ফেসবুকে লেখেন, তিনি হোটেলের দশম তলার একটি কক্ষে থাকছেন। ভূমিকম্পে পুরো ভবন প্রচণ্ড কেঁপে ওঠে। দেয়ালে ফাটল ধরে। দাঁড়িয়ে থাকা যাচ্ছিল না।

দুর্যোগ মোকাবিলা সংস্থার একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলকে বলেন, সুনামির সতর্কতা সরিয়ে নেওয়া হলেও দুটি গ্রামে সাগরের পানি ঢুকে পড়েছে।

ভূমিকম্পের পর মোটরসাইকেলে করে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে বাসিন্দাদের। আমপেনান জেলা, মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সভূমিকম্পের পর মোটরসাইকেলে করে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে বাসিন্দাদের। আমপেনান জেলা, মাতারাম, লমবক দ্বীপ, ইন্দোনেশিয়া, ৬ আগস্ট। ছবি: রয়টার্স২০০৪ সালে ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় সুমাত্রা দ্বীপের উপকূলে ৯ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে প্রলয়ংকরী সুনামিতে ভারত মহাসাগরের উপকূলের কয়েকটি দেশে প্রায় ২ লাখ ২০ হাজার লোক নিহত হয়। এর মধ্যে ইন্দোনেশিয়াতেই প্রাণ হারায় ১ লাখ ৬৮ হাজার জন।

সূত্রঃ প্রথম আলো 

Comment