No icon

আইপিএলে দলের দামে সাকিবকে টেক্কা মোস্তাফিজের মুম্বাইয়ের

গত বছরের তুলনায় এবার আইপিএলের ব্র্যান্ড মূল্য শতকরা ১৯ শতাংশ বেড়েছে। এই টুর্নামেন্টের দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের দাম ১০০ মিলিয়ন ডলারের বেশি। বৈশ্বিক করপোরেট ফিন্যান্স পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ডাফ অ্যান্ড ফিলিপসের হিসাবে উঠে এসেছে মোস্তাফিজ আর সাকিবের দলের দামও।

ক্রিকেটের কৌলীন্য এখন সোনায় মোড়ানো। লাভজনক বিনিয়োগ। নগদ নারায়ণ বিচার করলে ফুটবল কিংবা বাস্কেটবলের সঙ্গে ভালোই পাল্লা দিচ্ছে ক্রিকেট। আর এই মুহূর্তে খেলাটির সবচেয়ে চটকদার বিজ্ঞাপন হলো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। ২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো আইপিএল মাঠে গড়ানোর পর দিন দিন এই টুর্নামেন্টের অর্থমূল্য বেড়েই চলছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর যেমন আইপিএলের অর্থমূল্য বেড়েছে ১০০ কোটি ডলার!

হিসাবটা কষেছে বৈশ্বিক করপোরেট ফিন্যান্স পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ডাফ অ্যান্ড ফিলিপস। তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ২০১৮ আইপিএলের ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ বা মোট অর্থমূল্য ৬.৩ বিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা প্রায় ৫৩ হাজার ২২৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা! গত মৌসুমের তুলনায় এবার এই টুর্নামেন্টের অর্থমূল্য বৃদ্ধির হার শতকরা ১৯ শতাংশ। গত মৌসুমে আইপিএলের অর্থমূল্য ছিল ৫.৩ বিলিয়ন ডলার। অর্থাৎ এক বছরে আইপিএলের অর্থমূল্য বেড়েছে ১০০ কোটি ডলার।

এ বছর আইপিএল ৭ এপ্রিল মাঠে গড়িয়ে ২৭ মে শেষ হয়েছে। দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরেই শিরোপা জিতেছে চেন্নাই সুপার কিংস। ‘ডাফ অ্যান্ড ফিলিপস’ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ বিচারে ১০০ মিলিয়ন ডলার মূল্যের দলে উঠে এসেছে আইপিএলের দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি—কলকাতা নাইট রাইডার্স ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানস।

মোস্তাফিজুর রহমানের দল মুম্বাইয়ের ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ ১১৩ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা প্রায় ৯৫৪ কোটি ৭৫ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। আর সাকিব আল হাসানের সাবেক দল কলকাতার ‘ব্র্যান্ড ভ্যালু’ ১০৪ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৮৭৮ কোটি ৭১ লাখ ৬৮ হাজার টাকা)। অর্থাৎ মোস্তাফিজের ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের ব্র্যান্ড মূল্য সাকিবের দলের চেয়ে ৭৬ কোটি টাকার বেশি।

ব্র্যান্ড মূল্যের ক্ষেত্রে চেন্নাই সুপার কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু সমান অবস্থানে। দুটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের দামই সমান ৯৮ মিলিয়ন ডলার। সাকিবের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অর্থমূল্য ৭০ মিলিয়ন ডলার। এরপরই দিল্লি ডেয়ারডেভিলস (৫২ মিলিয়ন ডলার), কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব (৫২ মিলিয়ন ডলার) ও রাজস্থান রয়্যালস (৪৩ মিলিয়ন ডলার)।

আরও সংবাদ

Comment