A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: newsPosition

Filename: models/Write_setting_model.php

Line Number: 188

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Write_setting_model.php
Line: 188
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 32
Function: home_category_position

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Invalid argument supplied for foreach()

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 168

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 168
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: cat_list

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: implode(): Invalid arguments passed

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: implode

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined offset: 1

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 17

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 17
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 173
Function: page_data_for_home

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 48
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Invalid argument supplied for foreach()

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 168

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 168
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined variable: cat_list

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: implode(): Invalid arguments passed

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 172

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 172
Function: implode

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Undefined offset: 1

Filename: models/Home_model.php

Line Number: 17

Backtrace:

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 17
Function: _error_handler

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/models/Home_model.php
Line: 173
Function: page_data_for_home

File: /home/sottokonthonews/public_html/application/controllers/Article_controller.php
Line: 51
Function: home_data

File: /home/sottokonthonews/public_html/index.php
Line: 316
Function: require_once

আশরাফুলের গল্পটা হতে পারে মাদকাসক্তি থেকে ফেরার প্রেরণা
No icon

আশরাফুলের গল্পটা হতে পারে মাদকাসক্তি থেকে ফেরার প্রেরণা

আশরাফুল করিম। সংগৃহীত ছবিআশরাফুল করিম। সংগৃহীত ছবি

আশরাফুলের গল্পটা হতে পারে আশপাশের অনেক মাদকাসক্তের সুস্থ জীবনে ফেরার প্রেরণা

‘আশরাফুল ওহহ মাই সন!’

২০১৬ সালের কথা। আবাহনী ক্লাবের বারান্দায় বসে জর্জ কোটান। তাঁকে আশরাফুলের কথা জিজ্ঞেস করতেই ডুব দিলেন স্মৃতির সাগরে। উত্তেজিতও হলেন কিছুটা। এই প্রতিবেদকের কাছে প্রশ্ন রাখলেন—আশরাফুল কোথায় ?

বাংলাদেশের ফুটবলের অন্যতম সেরা কোচ জর্জ কোটান আশরাফুলকে মনে রেখেছেন। ফুটবল পাড়ায় এই আশরাফুলকে সবাই চেনেন, মাদকাসক্তি থেকে ফিরে আসা এক সফল ফুটবলার হিসেবে। ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাবে বসে আশরাফুল প্রথমে শোনালেন ভয়াবহ জীবনের গল্প। পরে ইচ্ছে শক্তির জোরে সেখান থেকে ফিরতে পারার গল্পে মিলিয়ে গেল প্রথম গল্প বলার কষ্ট।

১৯৯৯ সালে ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাব দিয়ে দেশের শীর্ষ ফুটবলে পা রাখেন আশরাফুল। ২০০১ সালে তুলনামূলক মোটা পারিশ্রমিকেই ঐতিহ্যবাহী আবাহনী লিমিটেডে নাম লেখান তিনি। অল্প বয়সে হাতে কাঁচা টাকা পেয়েছিলেন। আর টাকা থাকলে বন্ধু জুটতে সময় লাগে না। ব্যস, প্রথমে শুরু হলো অ্যালকোহল । এই অবস্থাতেও ২০০২ সালে জর্জ কোটানের অনূর্ধ্ব-২০ জাতীয় দলে খেলতে অসুবিধে হলো না খুলনার ছেলেটির। সেবার এএফসি অনূর্ধ্ব-২০ ফুটবলের চূড়ান্ত পর্বে খেলেছিল বাংলাদেশ। রক্ষণভাগে আশরাফুল ছিলেন কোটানের অতন্দ্র প্রহরী। ২০০৪ দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের রক্ষণভাগে অন্যতম ভরসার নামও আশরাফুল।

কিন্তু তত দিনে আশরাফুল মাদকে চুর। মদে আর নেশা হয় না, ধরলেন হেরোইন। আশপাশের সবাই বুঝতে পারলেন পথ হারিয়েছেন আশরাফুল। খেলায় মন নেই, অল্পতেই রেগে যান। ২০০৫ সালে পরিবারের উদ্যোগে খুলনার এক মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করানো হলো তাঁকে। সেখানে প্রায় দুই বছরেরও বেশি সময় যাওয়া-আসার মধ্যে থাকলেন। ফুটবল থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল জীবন। আর হয়ে পড়লেন আশপাশের মানুষের ঘৃণার পাত্র। আশরাফুলের ভাষায়, ‘ভালো ফুটবলার ছিলাম বলে সবাই আমাকে খুব ভালোবাসত। কিন্তু সবাই যখন বুঝতে পারল আমি নেশাগ্রস্ত, আমাকে ঘৃণা করতে শুরু করল। আমার যখন রিহাব চলে, তখনো আত্মীয়স্বজন আমাকে বাঁকা চোখে দেখত। কোনো পারিবারিক অনুষ্ঠানে যেতে পারতাম না। কি যে সেই কষ্টের সময় গিয়েছে।’

বলের দখলে লাফিয়ে উঠেছেন আশরাফুল। সংগৃহীত ছবিবলের দখলে লাফিয়ে উঠেছেন আশরাফুল। সংগৃহীত ছবিপুনর্বাসন পর্বের শেষ দিকে আশরাফুল ঘৃণা থেকে খুঁজতে থাকলেন মুক্তির রাস্তা । মানুষের ভালোবাসা ফিরে পেতে ব্যাকুল ছিলেন এই ফুটবলার। সুস্থ হয়ে আবার নেমে পড়লেন ফুটবলে। শুধু ইচ্ছেশক্তির জোরে ২০০৮ সালে তিনি ডাক পেলেন ব্রাদার্সের। সেখান থেকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজেএমসি, শেখ জামাল ঘুরে আবারও গোপীবাগের ক্লাবটিতে নোঙর গেড়েছেন আশরাফুল। ৩৮ বছর বয়সে এসে দৌড়টা এখনো চলছে। ফুটবলের সঙ্গে জীবনে যোগ হয়েছে স্ত্রী ও এক ছেলে। তাঁর মুখে এখন শুধু আনন্দ ও উচ্ছ্বাস, ‘প্রতিদিন সকাল বেলা ঘুম থেকে ওঠার পর সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানাই। খুব খারাপ সময় পাড়ি দিয়ে আজ আমি অনেক ভালো আছি। মানুষের ভালোবাসা ফিরে পেয়েছি। যার জন্য ৩৮ বছর বয়সে এসেও ফুটবল খেলতে পারছি।’

আশরাফুলের বন্ধুরা এত দিনে বিদায় বলেছেন ফুটবলকে। আশরাফুলের তা না বলার কারণটা জানালেন তিনি নিজেই, ‘মাদক থেকে ফিরে আসার পর আমি জীবনে আনন্দ খুঁজে পেয়েছি। আমার পরিবারে এসেছে শান্তি। শুধু এই আনন্দের জোরেই আমি এখনো ফুটবল খেলতে পারছি এবং সেরা একাদশে থেকেই খেলছি।’

মাদকসেবীদের প্রতি আশরাফুলের বার্তা:
মাদকের মধ্যে কোনো আনন্দ নেই। এটা শুধু জীবনকে ধ্বংস করে। নেশা থেকে ফিরে আসা কঠিন, জীবনও শেষ। অনেকেই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে শখের বশে মাদক গ্রহণ করে থাকেন। কিন্তু এখান থেকেও শরীরে বাসা বাঁধতে পারে মাদকের নেশা। যে কোনো সমস্যা হলে পরিবারের সঙ্গে শেয়ার করুন। পরিবারের চেয়ে আপন কেউ নেই।

Comment