No icon

টেস্টে বাংলাদেশের সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ের হাতছানি

  • এই টেস্ট জিতলে বা ড্র করলে বাংলাদেশ টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের আটে উঠে আসবে।
  • বাংলাদেশ পেছনে ফেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।
  • জিতলে ৬ রেটিং পয়েন্ট পাবে বাংলাদেশ, হেরে গেলে কমবে ১ পয়েন্ট।

ওয়ানডেতে বাংলাদেশের ধারাবাহিক অগ্রগতির প্রতিচ্ছবি ছিল র‍্যাঙ্কিংয়ে। বাংলাদেশ একসময় ছয়েও উঠে এসেছিল। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করা তো আর সহজ নয়। তবে ধীরে হলেও সেখানেও অগ্রগতির ছাপটা স্পষ্ট। আগামীকাল শুরু মিরপুর টেস্টে বাংলাদেশের সামনে যেমন র‍্যাঙ্কিংয়ের আটে ওঠে আসার সুবর্ণ সুযোগ।

জিতলে তো কথাই নেই, ড্র করলেও বাংলাদেশ টপকে যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। র‍্যাঙ্কিংয়ে এই দুই দলেরই রেটিং পয়েন্ট এখন সমান (৭২)। এই টেস্ট ড্র হলে বাংলাদেশের দুটি রেটিং পয়েন্ট বাড়বে। জিতলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট বাড়বে ৬। ৭৮ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তখন বাংলাদেশ সাতে থাকা পাকিস্তানের জায়গাটিকে পাখির চোখ করতে পারবে।

ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াকে দেশের মাটিতে হারানো; শ্রীলঙ্কার মাটিতে গিয়ে টেস্ট জিতে আসা...এরই সুফল হিসেবে বাংলাদেশের সামনে এখন আটে উঠে যাওয়ার সুযোগ। ড্র করলেও কাজটা হয়, তবে বাংলাদেশ এই টেস্ট জেতার জন্য খেলবে বলেই বার্তা দিয়েছে। তবে র‍্যাঙ্কিং মাথায় নিয়ে বাড়তি চাপ নেওয়ার মানে হয় না। জিতলে বা ড্র করলে র‍্যাঙ্কিং তো এমনিতেই বদল হবে। আর এমন তো নয়, এই টেস্টেই বাংলাদেশকে আটে উঠে আসার দিব্যি দিচ্ছে কেউ।


বাংলাদেশ তাই নির্ভার হয়ে এই টেস্ট খেলতে চায় বলে জানালেন মাহমুদউল্লাহ, ‌‌‌‘ম্যাচ জিতলে র‍্যাঙ্কিংয়ের এমনিতেই আপনার উন্নতি হবে। আটে উঠে আসা অবশ্যই আমাদের জন্য সুযোগ। তবে একটা টেস্ট জিততে পারা মানে তো বাংলাদেশের জন্যও জেতা হলো। তাই র‍্যাঙ্কিং নিয়ে অতটা ভাবছি না। জিতলে অবশ্যই এটা কাজে আসবে।’

আইসিসি টেস্ট র‍্যাঙ্কিং

র‍্যাঙ্কিং

দল

ম্যাচ

রেটিং

ভারত

৪৪

১২১

দক্ষিণ আফ্রিকা

৩৯

১১৫

অস্ট্রেলিয়া

৪০

১০৪

নিউজিল্যান্ড

৩৫

১০০

ইংল্যান্ড

৪৯

৯৯

শ্রীলঙ্কা

৪৩

৯৪

পাকিস্তান

৩৪

৮৮

ওয়েস্ট ইন্ডিজ

৩৬

৭২

বাংলাদেশ

২৩

৭২

১০

জিম্বাবুয়ে

১৪

Comment